ওয়ার্ডপ্রেস শেখা: (শুরুর আগে) ওয়ার্ডপ্রেস কি? কেন? কিভাবে শুরু করতে হবে?

what-is-wordpress

সবাইকে স্বাগত জানিয়ে রেডিয়েন্স ওয়েব টেকের পক্ষ থেকে ওয়ার্ডপ্রেসের এই ধারাবাহিক টিউটোরিয়ালে আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি আমি আল আমীন আজাদ। প্রথমেই কিছু কথা বলে নেয়া দরকার। এই ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়াল কাদের জন্য? কি শেখানো হবে এতে? এই সবকিছুর একটা ওভারভিউ প্রথমেই দিয়ে নিতে চাই।

ওয়ার্ডপ্রেস কি?

ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে টিউটোরিয়াল শুরু করার আগে ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে দুটি কথা বলে নিতে চাই। ধরেই নিচ্ছি যারা এই টিউটোরিয়ালের পাঠক হবেন, তারা বেশি কিছু জানেন না ওয়ার্ডপ্রেসের ব্যাপারে।

ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে ডাইনামিক কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। যেখান থেকে আপনি ডাইনামিক্যালি ওয়েবসাইটের কনটেন্ট পরিবর্তন করতে পারবেন। এজন্য আপনাকে কোডিং করতে বা সাইটে কোনো বড় পরিবর্তন করতে হবে না। সব কিছু সিস্টেম মতো দেয়া থাকবে আপনি শুধূ আপনার কনটেন্ট চেঞ্জ করে দেবেন।

স্টাটিক ওয়েবসাইটে যেমন আপনি চাইলেই কোনো ইমেজ বা আর্টিকেল বদলে দিতে পারেন না, এজন্য আপনাকে ওয়েব ডেভেলপারের সাথে যোগাযোগ করতে হয়। কিন্তু ডাইনামিক সাইটের জন্য আপনাকে এর কিছুই করতে হবে না। এই পুরো প্রক্রিয়াটি কোডিং করে করতে গেলে অনেক পরিশ্রম যেমন করতে হবে, তেমনি সময়ও অনেক বেশি লাগবে। কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে যদি আপনি করেন তবে সময়ও যেমন বাচবে তেমনি পরিশ্রমও অনেক কম হবে।

ভাবছেন এতো সহজে কেমনে? না এতো সহজে আসলে নয়। আপনি হয়তো পরিশ্রম অনেক কম করছেন কিন্তু এর পেছনে কাজ করছে একদল নিরলস স্বেচ্ছসেবী। যারা আপনাকে একটি সিস্টেম উপহার দিচ্ছে পেছনে থেকে। তাদের প্রতিও কৃতজ্ঞ থাকবেন। আশা করি একটি ধারনা পেয়েছেন। ধারনা আরো পরিষ্কার হবে কাজ করতে করতে।

যারা উপকৃত হবেন:

যাদের কম্পিউটারের ব্যাপারে বেসিক নলেজ আছে, ইন্টারনেট ব্যবহারেও হরদম অভ্যস্ত। নিজের জন্য একটি ওয়েব সাইট বানাতে চান, কিন্তু ওয়েব ডেভেলপারকে দিয়ে করিয়ে টাকা খরচ করতে চান না। তাদের জন্য আমার এই টিউটোরিয়াল। গুছিয়ে বলতে গেলে এভাবে হবে:

যারা ব্লগিং শুরু করতে চান:  

যারা ব্লগিং শুরু করতে চান তাদের জন্য এই সিরিজ হতে পারে খুবই উপযুক্ত। এর মাধ্যমে ব্লগিং করার জন্য যেমন একটি ওয়েব সাইট তৈরি করা শিখতে পারবেন। তেমনি ব্লগিং করার কিছু উপাদানও পেতে পারেন। এছাড়া এসইও প্লাগিন নিয়েও কিছু ধারনা দেয়া হবে এতে। সুতরাং আশা করছি যারা এখনো ব্লগিং শুরু করেননি, কিন্তু করতে চান তারা এই টিউটোরিয়ালের সিরিজ শেষে কাজে নেমে পড়তে পারবেন।

যারা নতুন ব্যবসা শুরু করতে চাচ্ছেন:

যারা স্বল্প পুঁজির ব্যবসা শুরু করতে চাচ্ছেন। বিশেষত এখনো অফিস নেননি। তাদের ব্যবসার সম্প্রসারনের জন্য একটি ওয়েবসাইট খুবই জরুরি। তারা যদি ব্যবসার প্লানিং এর সাথে সাথে কিছুটা সময় দিয়ে ওয়ার্ডপ্রেস শিখে নেন। তবে খুব সহজেই নিজের একটি ওয়েব সাইট বানাতে পারবেন।

wordpress-for-beginner

অনলাইন কর্মযজ্ঞে যারা ক্যারিয়ার গড়তে চান:

অনলাইনে নিজের ক্যারিয়ার গড়ার বিশাল সুযোগ ও সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু এই জন্য নিজেকে আগে প্রস্তুত করতে হবে। বিগিনার লেভেলের ওযার্ডপ্রেস শিখে হয়তো আপনি মার্কেটপ্লেসে কোনো কাজ পাবেন না, কিন্তু আপনাকে এডভান্স লেভেল শিখতে হলে আগে বিগিনার লেভেল শেষ করতে হবে। সুতরাং যারা ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে কারিয়ারের চিন্তা করছেন তাদের জন্য হতে পারে শেখার সুবর্ণ সুযোগ।

অপ্রয়োজনে যারা সময় কাটান অনলাইনে:

একটা প্রবাদ আছে সময়ের এক ফোঁড়, অসময়ের দশ ফোঁড়। আপনার হাতে এখন অফুরন্ত সময় রয়েছে, তাই অপচয় না করে কাজে লাগান। অযথা অনলাইনে সময় নস্ট না করে কিছু একটা শিখে রাখুন, দেখবেন কাজে দেবে। একসময় হয়তো এই শেখাটাই আপনার জীবন বদলে দিতে পারে।

যারা নতুন কিছু শিখতে চান:

যারা নতুন কিছু শেখার প্রতি সবসময়ই আগ্রহী, তারাও শিখতে পারেন ওয়ার্ডপ্রেস। কোনো কিছু শেখা থাকলে তা বৃথা যায় না। আর বিগিনার লেভেলে ওয়ার্ডপ্রেস শেখা এমন কঠিন কিছু নয়। আশা করি পারবেন শিখতে।

ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে যা জানতে হবে:

ওয়ার্ডপ্রেস শেখার জন্য আপনাকে কম্পিউটারের অনেক কিছু জানতে হবে তা নয়। আপনি যদি কম্পিউটারের বেসিক জ্ঞান রাখেন তবে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে পারবেন। আপনাকে কোনো কোডিং জানতে হবে না। তবে কোডিং কি জিনিস তা জানতে হবে। কোডিং এর ব্যাপারে পরিষ্কার ধারনা থাকতে হবে। তাহলে আপনি বিভিন্ন নির্দেশনা সহজে বুঝতে পারবেন। এছাড়া আপনাকে বিভিন্ন ইংরেজি নির্দেশনা ফলো করার ক্ষমতা থাকতে হবে। সবচেয়ে বেশি দরকার, নিজের সেন্স। কখন কি দরকার তা ধরার ক্যাপাসিটি যার যত বেশি সে তত তাড়াতাড়ি শিখতে পারবে।

টিউটোরিয়ালে যা থাকবে:

১. লোকাল কম্পিউটারে ওয়ার্ডপ্রেসের কাজ করার জন্য ইনভায়ারমেন্ট প্রস্তুত করা

২. ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করা

৩. থিম ইনস্টল করা ও পরিবর্তন করা।

৪. বিভিন্ন প্লাগিন ইনস্টল ও অ্যাক্টিভ করা

৫. পেজ ও ক্যাটাগরি তৈরি করা, কনটেন্ট আপলোড করা

৬. থিমের প্রয়োজনীয় পরিবর্তন করা

৭. উইজেট নিয়ে কাজ করা

৮. Contact form 7 ইনস্টল করা ও এডিট করা

৯. এসইও প্লাগিন ইনস্টল ও সেটিং দেখানো

১০. বিভিন্ন স্যোসাল প্লাগিন বা কোড এড করা

১১. ওয়েব সার্ভারে ওয়ার্ডপ্রেস আপলোড করা

১২. এছাড়াও পাঠকদের চাহিদার ভিত্তিতে (যদি থাকে) যে কোনো আপডেট টিউটোরিয়াল দেয়া

মোট কথা একটি পরিপূর্ণ ব্লগিং সাইট বানানোর জন্য যা যা দরকার আমরা তা করে দেখাবো। আমরা একটি পূর্ণাঙ্গ ব্লগ উপহার দেব।

আরো একটি কথা, আমাদের এই টিউটোরিয়ালটি হবে মূলত ভিডিওতে। ইউটিউবে দেয়া হবে। এখানে সংক্ষেপে প্রত্যেকটি টিউটোরিয়ালের ওভারভিউ দেয়া হবে। আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করে রাখতে পারেন।

সবাইকে সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। আশা করছি টিউটোরিয়ালগুলো উপভোগ করবেন। আর ভুল হলে বা ভালো লাগলেও কমেন্ট জানাতে অনুরোধ রইল।

 

Al Amin Azad Mainly Web Developer. But Blogging his passion. He loves to teach people that he know. He has a IT firm who are providing their service all over the world.

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine − 5 =